ভিটামিন সি এর উপকারিতা জেনে নিন

benefits of vitamin c

ভিটামিন সি (Vitamin C) হলো একটি তরল ভিটামিন যা সাধারণত টক ফলগুলোতে এবং প্রাণীর যকৃতে পাওয়া যায়। ১৯ থেকে ৭০ বছর বয়সি পুরুষ বা মহিলার জন্য এর গ্রহণ পরিমান 90 mg/75 mg পার ডে।

ভিটামিন সি এর উপকারিতা আমরা জানি এটি দাত ও মারির সুস্থতায় কাজে আসে। তবে ভিটামিন সি দাত এবং মারির জন্য যেমন অতুলনিয় কার্যকরি ঠিক তেমনি আমাদের ত্বকের জন্যও একি রকম আবার আমদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোতেও এর ভূমিকা অতুলনিয়।

এ ভিটামিন সাধারণত সে সব ফল যেগুলো খেতে টক সে বলগুলিতে পাওয়া যায়। যেমন লেবু, কমলা, আমলকী, জাম্বুরা, আমরা, কাচা মরিচ ইত্যাদি।

ভিটামিন সি এর ব্যপারে রাজধানির পান্থপথ অ্যাস্থেটিক লেজারের পুষ্টিবিদ তায়েবা সুলতানা বলেন, “ভিটামিন সি মানবদেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয় একটি মাইক্রো নিউট্রিয়েন্ট হিসেবে কাজ করে যা দাঁত ও চুল ভালো রাখতে সাহায্য করে।

এর পাশাপাশি এন্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে যা মানব দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে হৃদরোগ ও ক্যান্সার সহ বিভিন্ন জটিল রোগের ঝুকি হ্রাস করে। ”

“এছারা আরও বলেন শরীরে পর্যাপ্ত আয়রন শোষণে সহায়তা করে। সাধারণ সর্দি কাশিতেও এই ভিটামিন বেশ উপকারি। তবে ঠাণ্ডায় আক্রান্ত হওয়ার আগ থেকে, পযাপ্ত পরিমানে ভিটামিন সি জাতিয় খাবার খেলে বেশী উপকার পাওয়া যায় বলে প্রমাণিত।”

তিনি আরও বলেন “বয়স ভেদে এর চাহিদা বিভিন্ন রকম হলেও সাদারণত একজন পূর্ণ বয়স্ক পুরুষের দৈনিক ৯০ মি. গ্রা. এবং নারীর ৮০ মি. গ্রা. পরিমাণই যথেষ্ঠ।”

চোখের সুস্থতায় ভিটামিন সি এর উপকারিতা

চোখ আমাদের দেহের একটি খুবি গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। আর এর সুস্থ থাকাটা কতটা জরুরি তা আলাদা করে অনুধাবন করতে হয় না।

আমরা জানি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আর ভিটামিন সিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এ কাজটিই করে থাকে।

আমাদের চোখের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে আর এতে করে আমাদের চোখ থাকে স্বুস্থ।

ওজন কমানোতে ভিটামিন সি এর উপকারিতা

শরিরে অতিরিক্ত মেদ বা চর্বি বিভিন্ন রোগসোকের কারণ। এ চর্বি বা মেদ এর জন্য অল্প বয়সেই ছেলে মেয়েরা ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ আরও নানা ধরনের সমস্যায় ভোগে থাকে।

শরিরে অতিরিক্ত চর্বি বা মেদ কমানোর জন্য কতজন কত কী নাই করে থাকে। জীম থেক শরু করে ইয়োগা আরও কত প্রকার শারিরীক কসরত।

তবে এ সব কাজের উর্ধে যেটি কাজ করে সেটি হলো ভিটামিন সি। ভিটামিন সি মানবদেহের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে সাহায্য করে থাকে।

স্বাস্থ ঠিক রাখার কৈশল জানতে পড়ুন

বলাহয় ভিটামিন সি ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ চর্বি কমাতে সক্ষম। ভিটামিন সি মানবদেহে অ্যামাইনো অ্যাসিড এল-কারনাইটাইন সমন্বয় করে এবং চর্বি হজম করে তা শক্তিতে রুপান্তরিত করতে সাহায্য করে।

হাড়ের সুস্থতায় ভিটামিন সি এর উপকারিতা

হাড় দুর্বল থাকতে যেকোনো আঘাতে হাড় ভেঙ্গে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু গবেষণায় দেখাগেছে যে ভিটামিন সি হাড় মজবুদ করে আর হাড়ের ভঙ্গুর প্রবণতা কমিয়ে আনে।

ভিটামিন সিতে এমন এটি উপাদান আছে যা হাড়ের গঠন দূড় করে আর যারা ভিটামিন সি ঘন ঘন গ্রহণ করে তাকে তুলনামূলকক ভাবে তাদের হাড় অন্য যারা ভিটামিন সি পরিমানে কম গ্রহন করে তারে তুলনায় কম ভঙ্গুর হয়ে থাকে।

ক্যান্সার প্রতিরোধে ভিটামিন সি এর উপকারিতা

ক্যান্সার মূলত হয়ে থাকে যখন মানব শরীরে কোনো একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গে অনাকাক্ষিত ভাবে কোনো কোষ গড়ে উঠে। আর এটি ঘটে থাকে মানবশরীরে ধীরে ধীরে তৈরি হওয়া বিভিন্ন ডিসওডারের কারনে।

আর এ ডিসওডার গুলি হয়ে থাকে কোষ এবং ডিএনএর ক্ষতির কারণে। আর ভিটামিন সি এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এর সাহায্যে এ ক্ষতি দমক করে থাকে।

গবেষণায় দেখা গেছে ভিটামিন সি মানবদেহের প্রায় সকল ধরণের ক্যান্সার এর সম্ভাবনা কমিয়ে আনে।

ভিটামিন সি আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় আর এর মাধ্যমেই এটি ক্যান্সারের সাথে লরাই করে। ভিটামিন সি মানবশরীরে ইমিউন সিস্টেম বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো রেখে ক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ করার ক্ষমতা বাড়ায় এবং ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।

ক্যান্সাররের মতো কঠিন রোগ প্রতিরোধ করে এমন ঔসুধি গাছ সম্পর্কে পড়ুন

ত্বকের যত্নে হাড়ের সুস্থতায়  ভিটামিন সি এর উপকারিতা

ভিটামিন সি এর উপকারিতা

ভিটামিন সি যাকে অ্যাসকর্বিক অ্যাসিড বলেও জানা হয় যা ত্বা উজ্বল ও লাবন্যময় করে তুলে। আর বলা হয়ে থাক ত্বকের সমস্যা সমাধানের জন্য এটি টনিকের মতো কাজ করে।

১. ত্বকের লিংকেলস এবং ফাইন লাইনস প্রতিরোধ করে

বয়স বাড়ারর সাথে সাথে আমাদের ত্বকে নানা প্রকার দাগ ছোপ পড়তে থাকে। যার কারনে আমাদের ত্বক আর আগের মতো সুন্দর থকে না। তবে এর থেকে মুক্তি মিলে ভিটামিন সি এর সাহায্যে। ভিটামিন সি দেহের কোলাজেন সংস্লেশন বাড়িয়ে ত্বকের বার্ধক্য জনিত লক্ষনগুলো তুলনামূলক ভাবে কমিয়ে আনে। আর এ কারণে ত্বক দেখতে সুন্দর আর লাবন্যময় দেখায়।

২. সূর্য থেতে নির্গত ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে

ভিটামিন ই ক্যাপসুল এর সঠিক ব্যবহার জানুন

সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি অথৎ অতিবেগুণি রশ্মি যার কারণে আমাদের ত্বকে টান পড়ে যায় সাথে ত্বক রুক্ষ এবং সাথে লালচে দেখায়।

ভিটামিন সি ত্বককে রক্ষা করতে পারে এ প্রভাব থেকে আর তাছারা ভিটামিন সি এবং বিটামিন ই একসঙ্গে ব্যবহার করলে আরও ভলো উপকারিতা পাওয়া যায়।

৩. ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখাতে

ভিটামিন সিম এর উচ্চ মাত্রার ব্যবহার ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখাতে সাহায্য করে।

৪. ক্ষত নিরাময়ে ভিটামিন সি

ক্ষতস্থান নিরাময়ে ভিটামিন সি খুবি ভালো কাজ করে থাকে। তবে সবচেয়ে বেশী ভালো হয় যুদি ভিটামিন সি আর ভিটামিন ই একসাতে ব্যবহার করা হয়।

ভিটামিন সিতে অ্যাসকর্বিক অ্যাসিড থাকার কারনে এটি কোলাজেন গঠন সক্রিয় করে তুলতে পারে এবয় দ্রুত ক্ষতস্থান নিরাময়ে সহায়তা করে।

No Comments

Leave a Reply

Categories

Featured